ভারতী ঘোষের গ্রেফতারির ক্ষেত্রে স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট

ভারতী ঘোষের গ্রেফতারির ক্ষেত্রে স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট
ভারতী ঘোষের গ্রেফতারির ক্ষেত্রে স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট

নির্বাচনের আগে ফের স্বস্তি পেল বঙ্গ বিজেপি। ভারতী ঘোষের গ্রেফতারির ক্ষেত্রে স্থগিতাদেশ দিল দেশের শীর্ষ আদালত। যার জেরে পশ্চিম মেদিনীপুর ডেবরা থেকে প্রার্থী হয়ে লড়ছে আর কোন বাধা রইলো না এই প্রাক্তন আইপিএস অফিসারের।

এক সময়ের দাপুটে আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে এখন ত্রিশটি এফআইআর রয়েছে। এই অবস্থায় তিনি কিভাবে নির্বাচনে লড়তে পারেন তা জানতে চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। এমনকি তার রক্ষা কবছের জন্য দাবি করেছিল তার আইনজীবী এন কে কল।

এরপর আজ সর্বোচ্চ আদালত এক অন্তর্বর্তী নির্দেশে জানিয়েছে, বিধানসভা নির্বাচন না মেটা পর্যন্ত ১০ মে’র আগে ভারতী ঘোষকে গ্রেফতার করা যাবে না। ডেবরার বিজেপি প্রার্থী হিসেবে তিনি মনোনয়ন জমা দিতে পারবেন এবং প্রচারও করতে পারবেন। তারপরে স্বাভাবিকভাবেই স্বস্তি নেমে এসেছে বঙ্গ বিজেপি-র অন্দরে।

ভারতী ঘোষের আইনজীবী বলেন, “ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। আগামী ১৩ মার্চ ডেবরার প্রার্থী হিসেবে তাঁর মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা। আদতে ভারতী ঘোষকে আটকাতেই এই কৌশল নিয়েছে রাজ্য সরকার”।

অন্যদিকে, সরকার পক্ষের আইনজীবী সিদ্ধান্ত লুথরা বলেন, “আমরা তাঁকে গ্রেফতার করতে চাইছি না। যে আদালতে তাঁর নামে মামলা চলছে, সেই আদালত-ই তাঁর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। আর তিনি হাজিরা দেন না। এখন ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা হয়ে যাওয়ায় কমিশনের নিয়ন্ত্রণে সবকিছু। আর কমিশন রাজ্য পুলিসের নিয়ন্ত্রণে নেই”।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.