বিশেষ উদ্যোগ! নদী বাঁচানোর তাগিদে জলঙ্গি থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা সাইকেলে পাড়ি যুবকের

বিশেষ উদ্যোগ! নদী বাঁচানোর তাগিদে জলঙ্গি থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা সাইকেলে পাড়ি যুবকের
বিশেষ উদ্যোগ! নদী বাঁচানোর তাগিদে জলঙ্গি থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা সাইকেলে পাড়ি যুবকের

নিজস্ব প্রতিনিধি, নদীয়াঃ নদীকে বাঁচানোর তাগিদে নদীয়ার বছর ২৬ এর যুবকের বিশেষ উদ্যোগ। দীর্ঘপথ পাড়ি দিলেন সাইকেলে। বুকে ঝোলানো কাগজের পোস্টারে লেখা ‘জলঙ্গি, চূর্ণী, অঞ্জনা তোমার আমার ঠিকানা’।

নদীকে বাঁচানোর জন্য নদীয়ার এই যুবক সাইকেল চালিয়ে জলঙ্গির পাড় থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘার কোলে বাদকুল্লা থেকে টাইগারহিল পর্যন্ত সফর করবেন। আন্তর্জাতিক ভাষা দিবসে মানুষের কাছে বাংলার নদীদের কথা তুলে ধরতে, বেরিয়ে পড়লেন নদীয়ার বাদকুল্লার ২৬ বছরের পেশায় সবজি বিক্রেতা তরুণ অরূপ মণ্ডল। মাঝে মাঝে বাবাকে চাষের কাজে সহযোগিতাও করেন অরূপ। প্রকৃতিকে ভালোবাসেন অরূপ, তাই প্রকৃতির ধ্বংস মেনে নিতে পারেন না। ঠিক সেইভাবেই নদীকে বাঁচাতে অরূপের এই লড়াই।

অরূপের কথায়, ‘নদী বাঁচলে জীবন বাঁচবে’। অবিরল ও নির্মল বইতে দিন নদীদের- এই কথাই বলবেন অরূপ তাঁর ৬০০ কিলোমিটারের যাত্রপথে। অরূপ নিজে “জলঙ্গি নদী সমাজ”(কৃষ্ণনগর) নামে একটি সংগঠনের সদস্য। তাই সঙ্গে নিয়েছেন ওর প্রাণের নদী জলঙ্গীর একটুখানি মাটিও। রেখে আসবেন হিমালয়ের পায়ে। গাড়ওয়ালে সাম্প্রতিক হিমবাহ ধ্বসের পেছনে মানুষের অপরিনামদর্শী প্রকৃতি বিরোধী কাজের কথাও মাথায় রেখেছেন অরূপ। “জলঙ্গি নদী সমাজ” এর সঙ্গীরা অরূপকে তাঁর এই যাত্রাপথে নদীয়ার ধুবুলিয়া অবধি এগিয়ে দেন।