সামান্য পরিবর্তন হলো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিল্লি সফরের সময়সূচিতে!

সামান্য পরিবর্তন হলো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিল্লি সফরের সময়সূচিতে!
সামান্য পরিবর্তন হলো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিল্লি সফরের সময়সূচিতে!

সামান্য বদল হলো মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি সফরের সময়সূচিতে। জানা গিয়েছে ২৫জুলাই এর পরিবর্তে ২৬ জুলাই অর্থাৎ সোমবার দিল্লি যাবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর সফরসূচী পরিবর্তনে রাজনৈতিক চাল রয়েছে বলেই মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল।

মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় ইনিংস শুরুর পর আর দিল্লী যাননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই খুব শীঘ্রই রাজধানীতে যাওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তিনি। সেই কারণে একুশে জুলাই এর অনুষ্ঠানের পর ২৫ জুলাই দিল্লি উড়ে যাওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু জানা গিয়েছে ২৫ জুলাই বিজেপি বিধায়কদের একটি দল শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে দিল্লি যাচ্ছে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রীর সামনে তারা বিক্ষোভ দেখাতে পারেন বলেও খবর পাওয়া গিয়েছে সূত্র মারফত। আর ঠিক সেই কারনেই নিজের সফরসূচিতে বদল করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

আগের সফর সূচি অনুযায়ী ২৫ থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত পাঁচ দিন দিল্লিতে থাকার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তবে এবার একদিন পরে তিনি দিল্লী যাওয়ায় সে ক্ষেত্রে থাকার সময়সীমা আরও একদিন বাড়ানো হবে কিনা সে বিষয়ে অবশ্য এখনও কিছু জানা যায়নি। এদিকে মুখ্যমন্ত্রী দিল্লি পৌঁছানোর আগেই ২২ তারিখ রাতে দিল্লি যাচ্ছেন অধুনা দলের সেকেন্ড ম্যান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে গিয়ে তৃণমূল সুপ্রিমো কাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন সে বিষয়ে আগাম ব্যবস্থাপনা দেখতেই মূলত আগেভাগে যাচ্ছেন তিনি।

এদিকে দফায় দফায় প্রশান্ত কিশোর দিল্লী গিয়ে শরদ পাওয়ার, গান্ধী পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন, বৈঠকও করেছেন। তাই এর পরেই মুখ্যমন্ত্রী এবং দলের সেকেন্ড ম্যানের সেখানে যাওয়া অবশ্যই তাৎপর্য পূর্ণ। একইসঙ্গে দিল্লী গিয়ে সোনিয়া গান্ধী, অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে বৈঠক করবেন মমতা সূত্রের খবর এমনটাই। বৈঠকে বসতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং রাষ্ট্রপতির সঙ্গেও।