মহার্ঘ পেট্রোল ডিজেল! প্রতিবাদে পথে তৃণমূল

মহার্ঘ পেট্রোল ডিজেল! প্রতিবাদে পথে তৃণমূল
মহার্ঘ পেট্রোল ডিজেল! প্রতিবাদে পথে তৃণমূল

ক্রমেই ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে পেট্রোল ডিজেলের দাম। এর প্রতিবাদে শনিবার ও রবিবার প্রতিবাদ সভার ডাক দিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। সেই পূর্ব নির্ধারিত সূচি মত আজ পথে নামল তৃণমূল। এদিন শহর কলকাতা থেকে একাধিক জেলায় দেখা গেল সেই ছবি।

ঘাসফুল শিবিরের তরফে জানানো হয় করোনা বিধি মেনেই হবে এই কর্মসূচি। ৫০ জনকে নিয়েই হবে শান্তিপূর্ন মিছিল। এদিন সকাল থেকেই দক্ষিণ 24 পরগনা গঙ্গাসাগর মন্দিরতলা বাজারে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি দেখান তৃনমূলের কর্মী-সমর্থকরা। অন্যদিকে কচুবেড়িয়া গঙ্গাসাগর রোডের উপর নরেন্দ্র মোদির কুশপুতুল জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখান তারা।

এদিকে কলকাতায় লেকটাউন ঘড়ি মোড়ে বিজেপি সরকারের নীতির জন্য পেট্রোল ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে অবস্থান বিক্ষোভে অংশ গ্রহণ করেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম পেট্রোলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে আজ দুপুর দুটো নাগাদ খিদিরপুরে এবং তিনটে নাগাদ গার্ডেনরিচে বিক্ষোভ সমাবেশে যোগদান করবেন। এছাড়াও আজ বেহালা ম্যানটন এর সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত থাকবেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

ইতিমধ্যেই রাজ্যের একাধিক জেলায় পেট্রোলের দাম ১০০ পার করেছে । শনিবার ফের বাড়ল পেট্রোল ডিজেলের দাম। ইতিমধ্যেই রাজ্যে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছে পেট্রোলের দর। ডিজেলের দাম ও ১০০ ছোঁয়ার পথে। জুলাই মাসেও ঊর্ধ্বমুখী তেলের দাম। যদিও এর আগেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ১০০ পেরিয়েছে তেলের দাম। অস্বাভাবিক ভাবে তেলের দাম বাড়ায় স্বাভাবিক ভাবেই তার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বাজারে। ফলে মাথায় হাত মধ্যবিত্তের।

কলকাতায় আজ প্রতি লিটার পিছু ৩৯ পয়সা বেড়ে পেট্রোলের দাম ১০১ টাকা ১ পয়সা। ডিজেলের দাম লিটারপ্রতি পিছু ৩২ পয়সা বেড়ে ডিজেলের দাম এখন ৯২ টাকা ৯৭ পয়সা। ঊর্ধ্বমুখী জ্বালানির দাম নিয়ে তাই এবার পথে নামতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেসর

প্রসঙ্গত, কদিন আগেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ‘#মোদিবাবু পেট্রোল বেকাবু’ সহকারে ট্যুইট করে লেখেন, ‘ঐতিহাসিক উচ্চতায় জ্বালানি তেলের দাম। দেখে যেন মনে হচ্ছে মানুষের সমস্যা বাড়াতে খুবই পরিশ্রম করছে কেন্দ্রীয় সরকার। ২০২০ সালের তেমন কোনও পরিবর্তন হয়নি। দেশের মানুষের দাবিগুলি উপেক্ষা করে একে অন্যকে দোষারোপ করার খেলায় মেতেছে।’ এবার জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দিল রাজ্যের শাসক দল।

তেলের দামের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ভাড়াও। মে আর জুলাই মাস মিলিয়ে মোট ৩২ বার বেড়েছিল তেলের দাম। বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম কমেছে। তা সত্ত্বেও জুলাই মাসেও ঊর্ধ্বমুখী তেলের দাম। ভোট পরবর্তিকালে মোট ৩৭ বার বেড়েছে পেট্রোল-ডিজেলের দর। জ্বালানির এ ভাবে লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধিতে ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ। বিশেষত কোভিড এবং লকডাউনে অনেকেরই যেখানে কাজ গিয়েছে কিংবা কমেছে রোজগার। এ বিষয়ে প্রায় প্রতিদিন সরব হচ্ছেন বিরোধীরা। প্রতিদিনই জ্বালানির দাম বৃদ্ধির কারণে প্রতিবাদ করছে সাধারণ মানুষ।