‘সত্যের জয়’! জামিন পেয়েই বললেন যুব তৃণমূলের সভানেত্রীর সায়নী ঘোষ

‘সত্যের জয়’! জামিন পেয়েই বললেন যুব তৃণমূলের সভানেত্রীর সায়নী ঘোষ
‘সত্যের জয়’! জামিন পেয়েই বললেন যুব তৃণমূলের সভানেত্রীর সায়নী ঘোষ / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ অবশেষে জামিন পেলেন যুব তৃণমূলের সভানেত্রী সায়নী ঘোষ। তবে, অবশ্যই শর্তসাপেক্ষে। বলা হয়েছে, যখনই ডাকা হবে, তদন্তের স্বার্থে থানায় হাজিরা দিতে হবে সায়নী ঘোষকে, এমনটাই জানিয়েছে আদালত।

রাজনৈতিক অশান্তির জেরে উত্তপ্ত ত্রিপুরা। গতকাল দিনভর পূর্ব আগরতলা থানায় পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের পর, বিকেলের দিকে গ্রেফতার করা হয় যুব তৃণমূলের সভানেত্রী সায়নী ঘোষকে। দলের প্রচারে বেরিয়ে রাজনৈতিক উস্কানি, গাড়ি চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টার মতো গুরুতর সব অভিযোগ আনা হয়েছিল তাঁর বিরুদ্ধে। ভারতীয় দণ্ডবিধির জামিন অযোগ্য ধারায় মামলাও দায়ের হয়েছে। সায়নী ঘোষের গ্রেফতারি নিয়ে ইতিমধ্যেই চড়ছে রাজনীতির পারদ। আজই দিল্লিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন তৃণমূলের সাংসদরা। এদিন তাঁকে আদালতে পেশ করে পুলিশ। দু’পক্ষের সওয়াল জবাবের পর ২০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন পান সায়নী ঘোষ। তবে তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে তাঁকে।

বিপ্লব দেব শাসিত ত্রিপুরাতে তৃণমূল কংগ্রেসের উপর হামলা, যুব তৃণমূলের সভানেত্রী সায়নী ঘোষের গ্রেফতারি এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে কর্মসূচী করতে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, আর এই সব অভিযোগ নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদরা। কিন্তু সেই অনুমতি না পেয়ে, স্বরাষ্ট্র দফতরের সামনেই ধর্নায় বসেরন তৃণমূলের ১৮ জন সাংসদ। এদিন কেন্দ্রে বিজেপি সকারের পাশাপাশি ত্রিপুরার বিপ্লব দেবের সরকাররে সমালোচনায় সরব হন সাংসদরা। প্রথমে দেখা করার অনুমতি না মিললেও, পরে তৃণমূলের সাংসদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তৃণমূলের প্রতিনিধিদের অভিযোগ শুনলেন অমিত শাহ। বিপ্লব দেবের কাছে এর ব্যাখ্যা চেয়ে পাঠাবেন বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এমনটাই সূত্রের খবর।

এদিন সায়নীর জামিনের পর তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ জানান, ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরেই সায়নীকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় জামিন পেলেন সায়নী।’ অন্যদিকে, খোদ যুব তৃণমূলের সভানেত্রী সায়নী ঘোষ বলেন, ‘সত্যের জয় হল’।

উল্লেখ্য, রবিবার সায়নীকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় থানায় একাধিকবার হামলা হয় বলে অভিযোগ তৃণমূলের। তাই এদিন সায়নীর জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার আরজি জানিয়েছে তৃণমূল। জামিনের পর সায়নীর অভিযোগ, ‘রবিবার রাতে থানায় হামলা হয়েছিল। আমাকে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য পুলিশ অন্য থানায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।’