হাসপাতাল থেকে ছুটির আগের দিনই জীবনের থেকে ছুটি নিলেন! আজ শেষকৃত্য মন্ত্রীর

হাসপাতাল থেকে ছুটির আগের দিনই জীবনের থেকে ছুটি নিলেন! আজ শেষকৃত্য মন্ত্রীর
হাসপাতাল থেকে ছুটির আগের দিনই জীবনের থেকে ছুটি নিলেন! আজ শেষকৃত্য মন্ত্রীর

আলোর উৎসবের দিনই রাজনীতির ময়দানকে অন্ধকার করে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। আজ শুক্রবার তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। জানা গিয়েছে, শুক্রবারই হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু তাঁর আগেই জীবনের থেকে ছুটি নিয়ে নিলেন এই বর্ষীয়ান রাজনীতিক। সমস্ত সরকারি দফতরের অর্ধনমিত রাখা হবে জাতীয় পতাকা।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টার কিছু পরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা প্রাক্তন মেয়র সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। বেশ কিছুদিন থেকেই হার্টের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। অপারেশনও হয় তাঁর। ধীরে ধীরে স্থিতিশীল হয়ে উঠলেও শেষ রক্ষা আর হল না।

আজ সকাল ১০টা নাগাদ পিস ওয়ার্ল্ড থেকে রবীন্দ্র সদনে নিয়ে যাওয়া হবে এই বর্ষিয়ান মন্ত্রীর দেহ। সেখানে শ্রদ্ধা জানাতে পারবেন সাধারণ মানুষ। এরপর সেখান থেকে বিধানসভা হয়ে তাঁর দেহ নিয়ে যাওয়া হবে বালিগঞ্জের বাড়িতে। সবশেষে কেওড়াতলা মহাশ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে রাজ্যের প্রাক্তন পঞ্চায়েত মন্ত্রীর।

সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে, তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে রাজ্য সরকার আজ, সরকারি কার্যালয়গুলিতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হাসপাতালে গিয়ে ” সুব্রতর মত মানুষ খুব কম হয়। এর আগেও গোয়ায় গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তখন বাঁচিয়ে আনতে পেরেছিলাম। এবার আর পারলাম না। হার্টের সমস্যা হলে কখনোই ফেলে রাখা উচিত নয়। সুব্রতদার দেহ আমার পক্ষে দেখা সম্ভব নয়।”