আজ সকাল থেকেই বন্ধ একাধিক পেট্রল পাম্প! ধর্মঘটে চরম ভোগান্তির আশঙ্কা

আজ সকাল থেকেই বন্ধ একাধিক পেট্রল পাম্প! ধর্মঘটে চরম ভোগান্তির আশঙ্কা
আজ সকাল থেকেই বন্ধ একাধিক পেট্রল পাম্প! ধর্মঘটে চরম ভোগান্তির আশঙ্কা / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ঘোষণা অনুযায়ী, আজ ওয়েস্টবেঙ্গল পেট্রলিয়াম ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশনের ডাকে ধর্মঘটে সামিল হলেন সকল পাম্প মালিকরা। সকাল থেকেই হাওড়ার বিভিন্ন জায়গায় বন্ধ একাধিক পেট্রল পাম্প।

আজ সকল পেট্রল পাম্পগুলিতে ‘নো পারচেজ, নো সেল’- এর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর জেরে একটা বিরাট অংশের সাধারণ মানুষকে চরম ভোগান্তির মুখে পড়তে হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ওয়েস্টবেঙ্গল পেট্রলিয়াম ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশনের ডাকে মঙ্গলবার সকাল ছ’টা থেকে শুরু হওয়া এই ধর্মঘট চলবে বুধবার সকাল ৬ টা পর্যন্ত।

এই ধর্মঘট ডাকা সংগঠনের সদস্যদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে যে, পেট্রল-ডিজেলের দাম বেড়েছে কিন্তু মালিকদের কমিশন বৃদ্ধি করেনি কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও পাম্প মালিকদের দাবি, তাঁদের বেশ কিছু বক্তব্যও মেনে নেওয়া হয়নি। এর জন্যই ৪ ঘণ্টার পেট্রল পাম্প ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত নিতে তাঁরা বাধ্য হয়েছেন।

উল্লেখ্য, আগেই সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছিল যে, অ্যাম্বুল্যান্স সহ নানা জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত থাকা গাড়িগুলি এই ধর্মঘটের আওতায় পড়ছে না। তবে, এই ধর্মঘটের জেরে সাধারণ মানুষের যে ভোগান্তি বাড়বে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহই নেই।

অন্যদিকে, এই ধর্মঘটের বিরোধিতা করেছে ইন্ডিয়ান অয়েল ডিলার্স ফোরাম নামে একটি সংগঠন। ওই সংগঠন দাবি করেছে, তাঁদের আওতায় থাকা প্রায় ১০০০টি পেট্রল পাম্প মঙ্গলবার খোলা থাকছে। আর ওয়েস্টবেঙ্গল পেট্রলিয়াম ডিলার্স অ্যসোসিয়েশনের দাবি, প্রায় ২৫০০ পেট্রল পাম্প এদিন বন্ধ থাকছে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারেই ধর্মঘটে নেমেছে ট্যাঙ্কার মালিক এবং বিভিন্ন ট্যাঙ্কার অ্যাসোসিয়েশনগুলি। তেল বহনকারী ট্যাঙ্কারের পরিবহন খরচ বাড়ানোর দাবিতে, রাজ্যজুড়ে ধর্মঘটে সামিল হয়েছেন তাঁরাও। ফলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এদিকে, অগাস্ট মাসের শুরুতেই ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যাঙ্কার অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ইন্ডিয়ান ওয়েলের মৌড়িগ্রাম ডিপোয় ধর্মঘট ছিল। একাধিক পেট্রল পাম্পে জ্বালানির ভাঁড়ার শেষ হয়ে যায়। তখনও প্রবল ভোগান্তিতে পড়েছিলেন বেশ কয়েকটি জেলার মানুষ। এরপর মঙ্গলবারও দিনভর একই ভোগান্তির আশঙ্কা রয়েছে।