২০ বছরের যুদ্ধের সমাপ্তি! আফগানিস্তান থেকে সম্পূর্ণ সেনা প্রত্যাহার আমেরিকার

২০ বছরের যুদ্ধের সমাপ্তি! আফগানিস্তান থেকে সম্পূর্ণ সেনা প্রত্যাহার আমেরিকার
২০ বছরের যুদ্ধের সমাপ্তি! আফগানিস্তান থেকে সম্পূর্ণ সেনা প্রত্যাহার আমেরিকার / ছবি সৌজন্যে- Twitter @GregTKaiser

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ অবশেষে দীর্ঘ ২০ বছরের যুদ্ধের পরিসমাপ্তি। তালিবানরা আফগানিস্তান দখলের পর আজই দেশে ফিরল মার্কিন সেনা। আফগানিস্তান থেকে সম্পূর্ণ সেনা প্রত্যাহার করল আমেরিকা। আগের ঘোষণা অনুযায়ী, ৩১ আগস্টের সুময়সিমা শেষ হওয়ার আগেই সেনা প্রত্যাহার করল আমেরিকা।

কোনও পূর্ব পরিকল্পনা ছাড়াই ওয়াশিংটন এবং ন্যাটোর দেশগুলিকে আফগানিস্তান থেকে বেরিয়ে যেতে বাধ্য করা হয়েছে। বর্তমান অস্থির এবং ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে বহু আফগানবাসীকে তালিবানি ঘেরাটোপের মধ্যেই রেখে গেল আমেরিকা। এদিকে, মার্কিন সেনা দেশ ছাড়ায় রীতিমতো উৎসবের পরিবেশ কাবুলে।

এদিকে, সোমবার আল জাজিরা টিভির রিুপোর্ট অনুযায়ী তালিবান মুখপাত্র কয়ারি ইউসুফ বলেছেন, ‘শেষ মার্কিন সেনা কাবুল বিমানবন্দর ত্যাগ করা মাত্র পূর্ণ স্বাধীনতা লাভ করল আমার দেশ।’

অন্যদিকে, আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার প্রসঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আফগানিস্তান ত্যাগ করতে যাঁরা ইচ্ছুক তাঁরা যাতে নিরাপদ দেশ ছাড়তে পারে, তালিবানিদের এই প্রতিশ্রুতির দিকে নজর থাকছে বিশ্বের।’

এর পাশাপাশি টুইটারে দেশে সেনাবাহিনীর উদ্দেশ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আফগানিস্তানে আমাদের সামরিক অবস্থানের ইতি হল। বিগত ১৭ দিনে আকাশপথে সবথেকে বেশি মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। মার্কিন বাহিনী ১ লক্ষ ২০ হাজারের বেশ মার্কিন নাগরিক, সহকারী দেশের নাগরিক ও আমেরিকার আফগান সহকারীদের উদ্ধার করেছে যা আমেরিকার ইতিহাসে বৃহৎ। মার্কিন সেনা অসম্ভব সাহসিকতা, দৃঢ়তা ও পেশাদারিত্বের ছাপ রেখেছে।’

উল্লেখ্য, তালিবানের তরফে আগেই হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছিল ৩১ অগাস্টের পর আফগানিস্তানে আমেরিকা সহ কোনও বিদেশি বাহিনীর থাকা চলবে না৷ তালিবানদের সঙ্গে চুক্তির শর্ত মেনে, সেখান থেকে শুধু সামরিক বাহিনী ফিরিয়ে নেওয়াই নয়, আফগান প্রদেশ থেকে কূটনৈতিক উপস্থিতিও বন্ধ করে দিল আমেরিকা।