ভোট গ্রহণের সময়সীমা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে, দাবি আপত্তি শিক্ষক শিক্ষাকর্মী শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চর

ভোট গ্রহণের সময়সীমা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে, দাবি আপত্তি শিক্ষক শিক্ষাকর্মী শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চর
Image Source: Facebook Post By @ECI

ভোট গ্রহণের সময়সীমা বৃদ্ধির যে সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে নির্বাচন কমিশনের কাছে আর্জি জানাল শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চ। বুধবার এই সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি তোলা হয়, ভোট গ্রহণের সময়সীমা বৃদ্ধির যে সিদ্ধান্ত কমিশন নিয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে এবং ভোট কর্মীদের লাঞ্চের জন্য ভোটগ্রহণের দিন বিরতি দিতে হবে।

করোনা আবহে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে বুথের সংখ্যা প্রায় ৩০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। সেই সঙ্গে বুথ পিছু হাজারজন করে ভোটার রাখা হচ্ছে। পাশাপাশি কোভিডবিধির মধ্যে এবার যেহেতু ভোট হচ্ছে তাই হাতে দস্তানা পড়ে দেহের তাপমাত্রা মেপে তবেই বুথে প্রবেশ ও ভোট দেওয়ার অধিকার মিলবে। সে ক্ষেত্রে প্রত্যেক ভোটদাতার ভোট দেওয়ার সময়সীমাও বাড়ছে। সেই কারছে কমিশনও ভোটগ্রহণের সময়সীমা সন্ধ্যা ৬:৩০টা পর্যন্ত বাড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু সেই সময়সীমা বৃদ্ধি নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চ।

এদিন মঞ্চের তরফে সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক কিংকর অধিকারী জানিয়েছেন, ‘ভোটগ্রহণের সময়সীমা কেন বাড়ানো হল তা আমরা বুঝতে পারছিনা। ভোট কর্মীরা কি মানুষ নয়? আগের দিন ভোর থেকে ভোটের দিন রাত পর্যন্ত প্রায় বিরামহীন এই প্রক্রিয়াকে আরও দীর্ঘায়িত করা হলো। আমরা এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করছি এবং তা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। এ ছাড়াও আমরা প্রতিটি বুথে আমরা একজন করে অতিরিক্ত ভোট কর্মী দেওয়ার জন্যও দাবি জানিয়েছি। তা যদি না হয় তাহলে ভোট কর্মীদের লাঞ্চের জন্য দুপুরে কিছুটা সময় বিরতির ব্যবস্থা রাখা হোক। ভোট কর্মীদের দীর্ঘসময় বিরামহীনভাবে ডিউটিতে বাধ্য করানো শুধু আমানবিক নয়, অন্যায়ও বটে। আমরা নির্বাচন কমিশনকে ভোট কর্মীদের প্রতি মানবিক হওয়ার জন্য আবেদন জানাচ্ছি’।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.