‘২মে-এর পর কন্ডোম বিক্রি করবেন উনি’- সায়নীকে তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন অগ্নিমিত্রা পল!

'২মে-এর পর কন্ডোম বিক্রি করবেন উনি'- সায়নীকে তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন অগ্নিমিত্রা পল!
'২মে-এর পর কন্ডোম বিক্রি করবেন উনি'- সায়নীকে তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন অগ্নিমিত্রা পল!

রাজ্যে চলছে একুশের বিধানসভা নির্বাচন। রাজনীতির পারদ চড়ছে দিনের পর দিন। এর মধ্যেই ভেসে বেড়াচ্ছে এক শিবিরের প্রতি অন্য শিবিরের কটূক্তি। চলছে জোর তরজা৷ এসবের মধ্যেই আরেক বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল। নাম না করেই অভিনেত্রী সায়নী ঘোষকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘২ মের পর কন্ডোমের দোকান খুলবেন উনি’। যা নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই এখন নিন্দার ঝড় উঠেছে।

সায়নী ঘোষকে উদ্দেশ্য করে অগ্নিমিত্রা বলেন, “উনি তো রাজনীতি জানেন না। না জানাই স্বাভাবিক, কারণ এতদিন সিনেমা করে এসেছেন। এরপর দোসরা মে ভোটের রেজাল্ট বেরোলে তিনি হয়তো কন্ডোমের দোকান খুলবেন বা অন্য কোনও প্রফেশনে যাবেন বা হয়ত সিনেমাটাই করবেন।” সায়নী ঘোষের নমিনেশন জমা নিয়েও কটাক্ষ করেন অগ্নিমিত্রা। তিনি বলেন, “একজন সাধারণ কর্মী হয়ে আইন বিশ্ববিদ্যালয় বানানো যায় না। সায়নী নিজেই জানেন না যে তিনি কোন দলের হয়ে প্রচার করছেন, কোন দলের প্রার্থী হয়েছেন। তাঁর না জানাটাই স্বাভাবিক, কারণ দু বছর আগে এই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েকে তিনি তুলোধনা করেছিলেন নন্দন চত্বরে দাঁড়িয়ে। এখন টিকিট পেয়ে মমতা ব্যানার্জিকে গুরু-মা ভাবছেন।”

এখানেই থামেননি বিজেপি প্রার্থী। তিনি এও অভিযোগ তোলেন যে, করোনার সময়ে বিজেপির সাংসদ, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বা বিজেপি বিধায়ক কাউকেই কাজ করতে দেওয়া হয়নি। এমনকি করোনার সময় ত্রাণ দিতে গেলেও তাঁদের নাকি বাধা দেওয়া হয়। যদিও এহেন মন্তব্যে চুপ থাকেননি সায়নী ঘোষও৷ তাঁর পালটা জবাব, “অগ্নিমিত্রা পল এই ধরনের কথা বলে নিম্ন রুচির পরিচয় দিচ্ছেন । নিজের বংশপরিচয় দিচ্ছেন এবং তাঁর বেড়ে ওঠা কীভাবে তা বোঝাচ্ছেন। যত দিন যাচ্ছে তত প্রকাশ্যে আসছে যে উনি কত নিম্নমানের রাজনীতিবিদ। উনি আমায় বাচ্চা বলতেন, আমার থেকে এত সিনিয়র হয়েও কীভাবে এই মন্তব্য করছেন জানি না। আমি এই বিষয় নিয়ে মন্তব্য করে নিজেকে নিচে নামাতে চাই না।”

প্রসঙ্গত, আসানসোল দক্ষিণের প্রার্থী হিসাবে এ বছর তৃণমূল শিবিরের সায়নীর মুখোমুখি দাঁড়িয়েছেন গেরুয়া শিবিরের অগ্নিমিত্রা। আগামী ২৬ এপ্রিল সেখানে ভোট। তবে এর মধ্যেই রীতিমতো বাকযুদ্ধে নেমে পড়েছেন দুই তারকা প্রার্থী। চলছে কাদা-ছোঁড়াছুঁড়ি। ব্যক্তিগত আক্রমনও। সম্প্রতি সায়নীর পুরনো একটি টুইট নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর করেছিলেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। তাতে দেখা গিয়েছিল, একটি শিবলিঙ্গে কন্ডোম পরাচ্ছেন এক মহিলা। গ্রাফিকের ভিতরে লেখা, ‘বুলাদির শিবরাত্রি’। এর পরই ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দিয়েছেন বলে সায়নীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়েছিল। রবিবার, অগ্নিমিত্রার মন্তব্যও যে সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই, তা সন্দেহ নেই।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.