উড়ালপুল, রাজ্যে নতুন সড়ক! কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে একাধিক দাবি মমতার

উড়ালপুল, রাজ্যে নতুন সড়ক! কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে একাধিক দাবি মমতার
উড়ালপুল, রাজ্যে নতুন সড়ক! কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে একাধিক দাবি মমতার

দিল্লি সফরের শেষ দিনে কেন্দ্রীয় পরিবহন দপ্তরের মন্ত্রী নীতিন গড়কড়ির সঙ্গে বৈঠকে বসলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একাধিক সড়ক সমস্যা নিয়ে এদিন দাবি পেশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে একাধিক উড়ালপুলের দাবি করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লী সফরের শেষ দিন ছিল বৃহস্পতিবার। এদিনও রাজধানীতে ঠাসা কর্মসূচি ছিল তাঁর। এদিন দুপুর দুটোর সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করির সঙ্গে বৈঠকে বসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে রাজ্যের একাধিক সড়ক সমস্যার কথা তুলে ধরেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন বৈঠকে ঘূর্ণিঝড়ের জেরে রাজ্যের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে রাস্তার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। তাই দীঘা, সুন্দরবনের মতো এলাকাগুলিতে সড়ক ব্যবস্থা আরও উন্নত করার দাবি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপশি বারাসত-বনগাঁর জন্য রাস্তার আবেদন করেছেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রীকে জানিয়েছেন, রাজ্যের একাধিক জাতীয় সড়কের বেহাল দশা। সেগুলি দ্রুত মেরামতির প্রয়োজন। উত্তরবঙ্গে শিলিগুড়ি-সেবক রোডে বারবার ধস নামে। তাই এই এলাকায় বিকল্প ও উন্নত রাস্তা তৈরি করে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও একাধিক রাস্তা সম্প্রসারণের দাবি জানিয়েছেন মমতা।

একইসঙ্গে কলকাতায় আরও কিছু উড়ালপুল তৈরির দাবি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, মেট্রো সংখ্যা বাড়তে এখনও দেরি আছে। তাই মানুষের সুবিধার্থে আরও কিছু উড়ালপুল প্রয়োজন। তবে এদিনের বৈঠক ইতিবাচক হয়েছে বলেই জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, রাজ্যের সমস্যা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় পরিবহন দফতরের মন্ত্রী নীতিন গড়করি। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, রাজ্যের যাবতীয় সমস্যা খতিয়ে দেখতে রাজ্যে আসবে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। এরপরই রাজ্যের সড়ক ব্যবস্থার দ্রুত উন্নয়ন করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি। উল্লেখ্য এদিনের বৈঠকে কেন্দ্রীয় পরিবহন দফতরের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।