আগামিকাল থেকে খুলছে স্কুল! মানতে হবে এই নিয়মগুলি, কী বলছে পর্ষদের গাইডলাইন?

আগামিকাল থেকে খুলছে স্কুল! মানতে হবে এই নিয়মগুলি, কী বলছে পর্ষদের গাইডলাইন?
আগামিকাল থেকে খুলছে স্কুল! মানতে হবে এই নিয়মগুলি, কী বলছে পর্ষদের গাইডলাইন?/ প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনা আবহের মধ্যে আগামিকাল থেকেই রাজ্যে খুলছে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিও সারা। কুড়ি মাস পরে খুলছে রাজ্যে স্কুল। এদিকে, এখনও রাজ্যে করোনা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। যদিও সংক্রমণ আগের থেকে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। তাই ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখেই, স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ মতো, আগামিকাল ১৬ নভেম্বর থেকে খুলছে রাজ্যের সমস্ত স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়। ফিরতে চলেছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পুরনো ছবি! সশরীরে স্কুলে যেতে পারবে ছাত্র-ছাত্রীরা। কাজেই পড়ুয়াদের জীবনে ফিরতে চলেছে ক্লাসরুম, ব্ল্যাকবোর্ড! তবে স্কুল কলেজ খোলার আগে আবশ্যিক সব চেয়ে বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে পরিচ্ছন্নতায়। এদিকে রাজ্যের শিক্ষা দফতর থেকে পরিষ্কারভাবে কিছু নিয়মের কথা বলা হয়েছে। যা বাধ্যতামুলকভাবে মেনে চলতে হবে। এবার দেখে সরকারের নয়া গাইডলাইন।

স্কুলে ঢোকার আগে পড়ুয়া এবং অভিভাবকদের যে যে নির্দেশ মানতে হবে, তা হল- ১) ক্লাস শুরুর আধঘণ্টা আগে আসতে হবে পড়ুয়াদের। ২) নবম ও একাদশ শ্রেণির ক্লাস হবে সকাল ১০ থেকে দুপুর ৩.৩০ পর্যন্ত। ৩) দশম ও দ্বাদশের ক্লাস সকাল ১১ থেকে বিকেল ৪.৩০ পর্যন্ত। ৪) প্র্যাকটিক্যাল ক্লাসও শুরু হবে ১৬ নভেম্বর থেকেই। ৫) স্কুলের করিডর, গেটে নির্দিষ্ট দূরত্ব মেনে গোল দাগ কেটে দিতে হবে! ৬) স্কুলে আপাতত অভিভাবকরা প্রবেশ করতে পারবেন না! ৭) স্কুল-কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও পড়ুয়াই আংটি, বালা, হার-সহ কোনও গয়না পরতে পারবেন না। ৮) স্কুলে বসার ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট বিধি মানতে হবে। ৯) একটা বেঞ্চে দু’জনের বেশি পড়ুয়া বসতে পারবে না। একটি বেঞ্চে দু’জন পড়ুয়া বসলে, তার পরের বেঞ্চে একজন পড়ুয়া বসতে পারবে। ১০) স্কুলে, দেওয়া হবে না রান্না করা মিড ডে মিল। সেক্ষেত্রে, আগের মতোই বাড়িতে মিড ডে মিলের সরঞ্জাম দিয়ে দেওয়া হবে। ১১) আপাতত স্কুলে কোনও খেলাধুলো বা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও করা যাবে না। ১২) সব সময় ক্লাসে উপস্থিত থাকবেন একজন শিক্ষক। ১৩) স্কুলে জাঙ্কফুড কোনওভাবেই খাওয়া যাবে না। ১৪) দেওয়া-নেওয়া করা যাবে না, পানীয় জল বা বই।

প্রতীকী ছবি

অন্যদিকে, স্কুলের উদ্দেশ্যে নির্দেশে বলা হয়েছে-ইতিমধ্যে সমস্ত স্কুল পরিষ্কারের কাজ শুরু করে দিতে হবে। পয়লা নভেম্বর থেকে স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে হবে শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মীদের। হস্টেল খোলা যেতে পারে। তবে, সেক্ষেত্রেও কঠোরভাবে মানতে হবে কোভিড বিধি। স্কুলের হস্টেলে আইসোলেশন রুম রাখতে হবে। ক্লাসরুমে শিক্ষকের উপস্থিতিতে প্রার্থনা হবে!

উল্লেখ্য, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যও আলাদা করে নিয়ম বেঁধে দেয় শিক্ষা দফতর। তাতে বলা হয়েছে, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যের সব কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে সাফাই ও স্যানিটাইজেশনের কাজ শেষ করে ফেলতে হবে।