ফের চোখ রাঙাচ্ছে নিম্নচাপ! রাজ্যজুড়ে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

ফের চোখ রাঙাচ্ছে নিম্নচাপ! রাজ্যজুড়ে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস / প্রতীকী ছবি
ফের চোখ রাঙাচ্ছে নিম্নচাপ! রাজ্যজুড়ে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস / প্রতীকী ছবি

আগেই জানা গিয়েছিল, উত্তর বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হচ্ছে একটি নিম্নচাপ। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, তার জেরে প্রবল বৃষ্টিতে ভিজতে চলেছে রাজ্য। সোমবার থেকেই কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি। আজ থেকে তা আরও বাড়বে। আকাশ থাকবে মেঘলা, বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এদিন কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৫ শতাংশ ও সর্বনিম্ন ৮১ শতাংশ৷

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, দক্ষিণবঙ্গে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, নদিয়া, পূর্ব বর্ধমান, মুর্শিদাবাদে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা। এই জেলাগুলিতে কমলা সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। কলকাতা, বাঁকুড়া, বীরভূম, পুরুলিয়া, মুর্শিদাবাদ, ঝাড়গ্রাম এবং পশ্চিম বর্ধমানে হলুদ সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। এই দু’দিন এই জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। বাকি জেলাগুলিতে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। তবে বৃহস্পতিবার থেকে বৃষ্টি বাড়বে। ৩০ জুলাই পর্যন্ত মুষলধারে বৃষ্টিতে ভিজবে দক্ষিণবঙ্গের কমবেশি সব জেলাই।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপটি ক্রমশ বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে যাবে। তার জেরে প্রবল বৃষ্টিতে ভিজবে দক্ষিণবঙ্গ। ইতিমধ্যেই আবহাওয়া দপ্তরের তরফে সতর্ক করে বলা হয়েছে, ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির জেরে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন নদীর জলস্তর বাড়তে পারে। এছাড়াও নিচু এলাকাগুলি প্লাবিত হতে পারে। তাই বন্যার আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। ইতিমধ্যেই আবহাওয়া দপ্তরের তরফে মৎস্যজীবীদের বিশেষভাবে সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে, ২৮ জুলাই থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত তাঁরা যেন সমুদ্রে মাছ ধরতে না যান। যাঁরা ইতিমধ্যেই গিয়েছেন, তাঁদের ২৮ জুলাই বিকেলের মধ্যে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।