দুধ বারবার গরম করে খাওয়া কি ক্ষতিকর! জেনে নিন

দুধ বারবার গরম করে খাওয়া কি ক্ষতিকর! জেনে নিন
দুধ বারবার গরম করে খাওয়া কি ক্ষতিকর! জেনে নিন

সব মানুষই মনে করেন ফোটানো দুধ একটু বেশি দিন ভাল থাকে। দুধ ফ্রিজে রেখে আপনি অনায়াশে তিন থেকে চার দিন চালিয়ে নিতে পারবেন। তবে অনেকেই আবার ভুল যান যে, প্যাকেটের দুধ আগে থেকেই ‘প্যাশ্চারাইজ’ করা থাকে। যাকে সহজ ভাষায় বললে, যতটা ফুটালে ব্যাকটিরিয়া মরে যায়, ততটা তাপমাত্রা পর্যন্ত আগে থেকেই ফোটানো হয়। তারপরেই সেগুলো বিক্রি করা হয়। বিশেষ করে টেট্রা প্যাকে যে দুধ বিক্রি হয়, সেগুলি ফোটানোর আর কোনও প্রয়োজন থাকে না। সিল না খোলা পর্যন্ত আপনি সহজেই বাইরে রাখতে পারবেন। খারাপ হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

কিন্তু সেই দুধ আবার ফুটিয়ে খেলে কি কোনও অসুবিধা হতে পারে? না কোনো অসুবিধা নেই। দুধ ফ্রিজ থেকে বার করে আপনি যেমন প্রয়োজন ফোটাতেই পারেন। তাতে কোনও রকম ক্ষতি হয় না। তবে বিশেষজ্ঞদের মত অনুযায়ী দুধ ২-৩ বারের বেশি না ফোটানোই ভালো। তার মধ্যেই সেটি শেষ করে ফেলা উচিত।

আবার অন্যদিকে দুধ ফোটানো সহজ মনে হলেও কাজটা কিন্তু ততটা সহজ নয়। খুব বেশি আঁচে দুধ ফুটালে তলার দিকটা ধরে যেতে পারে। তাই মাঝারি আঁচে ধীরে ধীরে দুধ ফোটাতে হবে। এবং পাত্রের পাশে অল্প অল্প বুদবুদ দেখলেই হালকাভাবে নাড়তে হবে। দুধ ফুটে উপরে ওঠা পর্যন্ত হালকা হাতে নেড়ে যেতে হবে। ফুটে গেলে উপরে যে সর পড়বে সেটা তুলেও নিতে পারেন।

সেটি খেলেও কোনও সমস্যা হবেনা। তবে অনেকের আবার দুধ খেলে হজমের সমস্যা দেখা যায়, তাঁদের এই সর খেলে সেই সমস্যা দেখা দিতে পারে। আবার চাইলে সর তুলে রূপচর্চায় ব্যবহার করতে পারেন। খুব বেশি আঁচে দুধ ফুটালে দুধের জল মরে গিয়ে প্রোটিন গাঢ় হয়ে যায় বেশি। তাতে দুধের স্বাদ এবং রং বদলে যায়।