সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২

স্বামীর অবৈধ সম্পর্কের জেরে করুণ পরিণতি স্ত্রীর! মেয়ের অভিযোগে গ্রেপ্তার বাবা

০২:৩৭ পিএম, ডিসেম্বর ২৪, ২০২১

স্বামীর অবৈধ সম্পর্কের জেরে করুণ পরিণতি স্ত্রীর! মেয়ের অভিযোগে গ্রেপ্তার বাবা

স্বামীর বিবাহ বহির্ভূত অবৈধ সম্পর্ক! তার জেরে আত্মঘাতী হলেন স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে সল্টলেকের বিচিত্রা আবাসনে। মায়ের মৃত্যুর অভিযোগে বিধাননগর উত্তর থানায় বাবার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে কন্যা। এরপরই গ্রেপ্তার করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে৷

পুলিশ সূত্রে খবর, ২০০৫ সালে সল্টলেক নিবাসী সঞ্জয় কুমার পাত্রর সঙ্গে বিয়ে হয় সোমা চৌধুরীর। দুজনেরই তা ছিল দ্বিতীয় বিবাহ৷ প্রথম বিবাহের দরুন সোমার এক সন্তান ছিল এবং সঞ্জয় ছিল ডিভোর্সী। সল্টলেকের বিচিত্রা আবাসনে বসবাস করতেন তাঁরা। তবে বিয়ের পরেও বিভিন্ন মহিলার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে লিপ্ত ছিলেন সঞ্জয়। সেই নিয়ে বারংবার সাংসারিক অশান্তিতে জড়াতেন সোমা এবং সঞ্জয়। এমনকি একাধিকবার সোমার গায়ে সঞ্জয় হাতও তোলেন বলে অভিযোগ।

গতকাল রাতে ফের অশান্তি চূড়ান্ত পর্যায় পৌঁছাতেই সঞ্জয়ের প্ররোচনায় বিষ (অর্গানিক ফসফেট) খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে সোমা। তাঁকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি করা হয় আর জি কর হাসপাতালে। সেখানেই মৃত্যু হয় মহিলার। এরপরই বিধাননগর উত্তর থানায় সঞ্জয়বাবুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে কন্যা কাজরী।

ঘটনার তদন্ত শুরু করে গতকাল রাতেই অভিযুক্ত সঞ্জয় কুমার পাত্রকে গ্রেপ্তার করে বিধাননগর পুলিশ। আজ অভিযুক্তকে বিধাননগর আদালতে তোলা হবে বলে জানা গিয়েছে। ঠিক কী কারণে এই ঘটনা ঘটল বা মহিলাটি বিষই বা থেকে পেলেন, সেই বিষয়ে তদন্ত করছে বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশ।