বোনকে ধর্ষণ করেছে বাবা! জানাজানি হতেই লজ্জায়, অপমানে আত্মঘাতী দাদা

বোনকে ধর্ষণ করেছে বাবা! জানাজানি হতেই লজ্জায়, অপমানে আত্মঘাতী দাদা
বোনকে ধর্ষণ করেছে বাবা! জানাজানি হতেই লজ্জায়, অপমানে আত্মঘাতী দাদা / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ নিজের জন্মদাতা পিতার কাছেও নিরাপদ নয়, কন্যাসন্তান। জন্মদাতা বাবাই নাকি দিনের পর দিন নিজের মেয়েকে খুনের হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করে গিয়েছে। আর এই কথা নিজেরই কাকিমার কাছে জানায় কিশোরী কন্যা সন্তান। এদিকে নিমেষেই ভাইরাল হয়ে যায় সেই অডিও ক্লিপ। এই ঘটনার কথা জানতে পারে কিশোরীর দাদাও।

বাবার এহেন ঘৃণ্য কর্মকাণ্ড কোনভাবেই মেনে নিতে পারেনি ছেলে। অপমানে, লজ্জায় আত্মঘাতী হলেন ওই নির্যাতিতা কিশোরীর দাদা। এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে রাজস্থানের জোধপুরের ঝালোরে। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই বিভিন্ন মহলে উঠেছে সমালোচনা ও নিন্দার ঝড়।

বর্তমানে করোনা আতঙ্কে বন্ধ সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অনলাইনের ক্লাসই ভরসা পড়ুয়াদের কাছে। আর এই ক্লাস করতে গেলে+ পড়ুয়াদের একমাত্র ভরসা স্মার্টফোন। ঝালোরের বাসিন্দা ওই কিশোরীর দাবি অনুযায়ী, অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতে পারার জন্য মোবাইল কিনে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তার বাবা। মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে গিয়ে স্মার্টফোন কিনে দেবে বলেও জানায় ওই ব্যক্তি। যদিও কিশোরীর মা বলেছিলেন, স্মার্টফোন কিনতে যাওয়ার সময় মেয়ের পাশাপাশি ছেলেকেও সঙ্গে নিয়ে যেতে। তবে, তাতে রাজি হননি ওই ব্যক্তি। একা নিয়ে যাওয়ার সুযোগে গাড়িতে ওই কিশোরীকে তার বাবা ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। জানাজানি হলে, কিশোরীকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ।

নির্যাতিতা কিশোরী তাঁর অভিযোগে আরও জানিয়েছেন যে, এর আগেও ঘুমন্ত অবস্থায় তাঁর বাবা তাঁকে একাধিকবার যৌন হেনস্তা করে। টের পেয়ে যাওয়ায় বাধা দেয়। লোক জানাজানি করতে বারণ করে কিশোরীর বাবা। জানাজানি হলে খুনের হুমকিও দেয়। এমনকী কিশোরীকে তাঁর বাবা পরিজন, প্রতিবেশীদের সঙ্গে মিশতে দিত না বলেও অভিযোগ। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে বাধ্য হয়েই কাকিমার কাছে গোটা ঘটনাটি খুলে বলে কিশোরী। ওই অডিও ক্লিপই ভাইরাল হয়ে যায়। যা শুনতে পায় ওই নির্যাতিতা কিশোরীর দাদাও।

এদিকে, বাবার এহেন জঘন্য ‘কুকীর্তি’র কথা জানতে পেরেই সাঞ্চৌরে নর্মদা খালে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হন ওই কিশোরীর দাদা। অন্যদিকে, কাকিমার অভিযোগের ভিত্তিতে কিশোরীর বাড়িতে পুলিশ পৌঁছায়। তবে, পুলিশ আসার আগেই কিশোরীর বাবা ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে। কিশোরীর মেডিক্যাল টেস্টও করানো হয়েছে।