রবিবার, ০২ অক্টোবর, ২০২২

ঘণ্টা চারেক জিজ্ঞাসাবাদের পর, সিবিআই দফতর থেকে সোজা এসএসকেএম গেলেন অসুস্থ অনুব্রত

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: মে ১৯, ২০২২, ০৩:৩৪ পিএম | আপডেট: মে ১৯, ২০২২, ০৩:৩৪ পিএম

ঘণ্টা চারেক জিজ্ঞাসাবাদের পর, সিবিআই দফতর থেকে সোজা এসএসকেএম গেলেন অসুস্থ অনুব্রত
ঘণ্টা চারেক জিজ্ঞাসাবাদের পর, সিবিআই দফতর থেকে সোজা এসএসকেএম গেলেন অসুস্থ অনুব্রত

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ একাধিক বার তলবের পর অবশেষে নিজাম প্যালেসে সিবিআই-এর দফতরে যান বীরভূমের তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। গরু পাচারকাণ্ডে তদন্তে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য একাধিকবার সমন পাঠায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। কিন্তু এর আগে একাধিকবার শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে তিনি হাজিরা এড়িয়ে গিয়েছেন। কিন্তু এবার তিনি নিজেই হাজিরা দিতে ইচ্ছা প্রকাশ করেন। সেই জন্যই এদিন নির্দিষ্ট সময়ের আগেই নিজাম প্যালেসে যান অনুব্রত মণ্ডল। এদিন অনুব্রত মণ্ডলকে ঘণ্টা চারেক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এদিন নিজাম প্যালেসে জিজ্ঞাসাবাদের পর সেখান থেকে বেরিয়ে তৃণমূলের দাপুটে এই নেতা সোজা চলে যান এস এস কে এম হাসপাতালে। 

জানা গিয়েছে, শারীরিক পরীক্ষার জন্য বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়। হুইল চেয়ারে করে অনুব্রত মণ্ডলকে এস এস কে এম-এর উডবার্ন ওয়ার্ডের ২১১ নম্বর কেবিনে নিয়ে যাওয়া হয়। আপাতত সেখানেই আছে তিনি। জানা গিয়েছে, এদিন রুটিন চেকআপের সময় দিয়েছিলেন এস এস কে এমের চিকিৎসক। সেই পরামর্শ মেনেই সময়মত হাসপাতালের জরুরি বিভাগে যান অনুব্রত। এদিন তাঁকে বেশ অসুস্থই দেখাচ্ছিল। নিজাম প্যালেস থেকে বেরিয়ে কারও সঙ্গে কথা বলেননি অনুব্রত মণ্ডল। 

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকাল ৯ তা ৫০ নাগাদ নিজাম প্যালেসে হাজির হন অনুব্রত মণ্ডল। ১০ টায় হাজিরার কথা থাকলেও, সময়ের আগেই তিনি পৌঁছে যান। তবে, এদিন তাঁকে বুকের বাঁদিকে হাত রেখে নিজাম প্যালেসে ঢুকতে দেখা গেল। পরনে ছিল হালকা সবুজ রঙের ঢিলেঢালা পাঞ্জাবি। তাঁকে এদিন দৃশ্যত বিধ্বস্ত লাগছিল। দুপুর ২ টো নাগাদ তাঁর চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করার কথা থাকায়, তার আগেই নিজাম প্যালেস ছাড়েন কেষ্ট। এর মধ্যেই তাঁকে কয়েক দফা প্রশ্ন করেন তদন্তকারী অফিসাররা। 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগে ৬ বার শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে হাজিরা এড়িয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। গত ৬ এপ্রিল গরু পাচারকাণ্ডে নিজাম প্যালেসে হাজিরা দেওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিলেও, মাঝ পথেই রাস্তা পাল্টে অসুস্থ হয়ে তড়িঘড়ি এস এস কে এম হাসপাতালে ভরতি হন। সেই সময় বেশ কিছুদিন হাসপাতালেই ভরতি ছিলেন। বুকে ব্যথা এবং অণ্ডকোষে সংক্রমণের মতো শারীরিক সমস্যা তাঁর ধরা পড়ে। এদিকে বিরোধীরা তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে কটাক্ষ করতেও ছাড়েনি। অনুব্রত মণ্ডল সিবিআই-এর কাছে কিছুটা সময় চেয়েছিলেন। এরপর বুধবার নিজেই হাজিরা দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।