শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

বিচারপতিদের নিয়োগ সংক্রান্ত কলেজিয়াম বৈঠকের তথ্য প্রকাশ্যে আনা সম্ভব নয়! জানাল শীর্ষ আদালত

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৯, ২০২২, ০১:১০ পিএম | আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০২২, ০১:২১ পিএম

বিচারপতিদের নিয়োগ সংক্রান্ত কলেজিয়াম বৈঠকের তথ্য প্রকাশ্যে আনা সম্ভব নয়! জানাল শীর্ষ আদালত
বিচারপতিদের নিয়োগ সংক্রান্ত কলেজিয়াম বৈঠকের তথ্য প্রকাশ্যে আনা সম্ভব নয়! জানাল শীর্ষ আদালত

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ বিচারপতিদের নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে কলেজিয়াম বৈঠকের তথ্য প্রকাশ্যে আনা কোনভাবেই সম্ভব নয়। তাই এই বিষয়ে মামলাকারীদের অনুরোধ খারিজ করে দিল দেশের শীর্ষ আদালত। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে বলা হয়েছে যে, ‘কলেজিয়াম বৈঠকে যা কিছু আলোচনা হয়েছে, তা প্রকাশ্যে আনা সম্ভব নয়। শুধুমাত্র এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তই প্রকাশ্যে আসতে পারে।’

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ১২ ডিসেম্বরে ২ জন বিচারপতির নিয়োগের বিষয়ে বৈঠকে বসেছিল সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম। সেই বৈঠকের তথ্য প্রকাশ্যে আনার দাবি জানিয়ে শীর্ষ আদালতে পরে আবেদন জানিয়েছিলেন সমাজকর্মী অঞ্জলি ভরদ্বাজ। ‘তথ্য জানার অধিকার’ আইনে ওই বৈঠকের বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চেয়ে আবেদন জানিয়েছিলেন সমাজকর্মী অঞ্জলি। কিন্তু এদিন সেই আবেদন খারিজ করে দেওয়া হয়। সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, ‘কলেজিয়ামের বৈঠকে থাকা একজন বিচারপতির একটি সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে ওই আবেদন করেছিলেন মামলাকারী।’ তবে, এই বিষয়ে বিচারপতিরা নতুন করে কোনও মন্তব্য করতেও চাননি।

উল্লেখ্য, ২০১৮-র সুপ্রিম কোর্টের ওই কলেজিয়ামের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। এছাড়াও ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, আরও চারজন বর্ষীয়াণ বিচারপতি। ছিলেন বিচারপতি মদন বি লোকুর, বিচারপতি একে শিকরি, বিচারপতি এসএ বোপডে এবং বিচারপতি এনভি রামানা।

সূত্রের খবর, বিচারপতিদের নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রত্যেকেই সহমত জানিয়েছিলেন। পরবর্তীকালে কলেজিয়ামের সুপারিশ করা বিচারপতিদের নিয়োগের ক্ষেত্রে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে টালবাহানার অভিযোগ ওঠে। অন্যদিকে, ওই সময়ে কলেজিয়াম বৈঠকের কোনও তথ্যই সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে আপলোডও করা হয়নি। এরপর ওই বৈঠকের ঠিক এক বছরের মাথায় ২০১৯ সালে এই বিষয় নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন বিচারপতি মদন বি লোকুর।

অন্যদিকে, কলেজিয়ামের সুপারিশ করা বিচারপতিদের নিয়োগ করার বিষয় নিয়ে এই বছরের নভেম্বরেই দেশের শীর্ষ আদালতও অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল। বৃহস্পতিবার এই প্রসঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেল আর বেঙ্কটরামানিকে বিচারপতি সঞ্জয় কিষণ কউলের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, কলেজিয়াম ব্যবস্থা দেশের একটি আইন। এর বিরুদ্ধে সরকারি পদাধিকারিদের মন্তব্য করার বিষয়টি মোটেও ভালোভাবে নিচ্ছে না। এর পাশাপাশি করকারকে নির্ধারিত রীতি মনে চলার জন্য আদালত পরামর্শ দিচ্ছে বলেও, বেঞ্চের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।