বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ! বঙ্গে কি আজও বৃষ্টির সম্ভাবনা? কী বলছে হাওয়া অফিস?

চৈত্রী আদক

প্রকাশিত: মে ১৪, ২০২২, ০৮:৪৮ এএম | আপডেট: মে ১৪, ২০২২, ০৮:৫১ এএম

সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ! বঙ্গে কি আজও বৃষ্টির সম্ভাবনা? কী বলছে হাওয়া অফিস?
সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ! বঙ্গে কি আজও বৃষ্টির সম্ভাবনা? কী বলছে হাওয়া অফিস? / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪×৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার। একরাশ কালো মেঘের মাঝে যাও বা মাঝেমধ্যে রোদের দেখা মিলছে পরক্ষণেই তা আবার ঢেকে যাচ্ছে মেঘের চাদরে। সেই সঙ্গে বইছে ঠান্ডা হওয়াও। যার জেরে স্বস্তি মিলেছে রাজ্যবাসীর। শুক্রবার রাতে রাজ্যের একাধিক জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত হয়। শনিবারও কি বঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে? কী বলছে আবহাওয়া দফতর?

মৌসম ভবন জানাচ্ছে শনিবার কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, বাঁকুড়া, বীরভূম, নদিয়া ও মুর্শিদাবাদে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। কাল থেকে বাংলায় বৃষ্টির পরিমাণ কমবে। ফলত তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি বাড়তে পারে।

দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেরও একাধিক জেলায় বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। শনিবার দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পংয়ে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে জারি হয়েছে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। অন্যদিকে মালদা, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির সঙ্গে অব্যাহত থাকবে ঝোড়ো হওয়া, যার গতিবেগ ঘন্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে।

হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, শনিবার মহানগরীর আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। তাপমাত্রারও বিশেষ হেরফের হবে না। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে ঘোরাফেরা করবে। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছে। বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ ৭৭ শতাংশ। গতকাল কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃষ্টির কারণে রাতের দিকে মৃদু ঠান্ডার আমেজ অনুভূত হয়েছিল।

মৌসুম ভবন জানিয়েছে, এই বছর নির্ধারিত সময়ের আগেই বঙ্গে বর্ষা প্রবেশ করবে। সাধারণত আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ২১ মে অথবা ২২ মে মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করে। তবে এই বছর আগামী ১৫ মে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ মৌসুমী বায়ুর প্রবেশ ঘটবে। যার ফলে এবার বাংলায় বর্ষার আগমন বেশ কয়েকদিন আগেই হবে।