শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২

আটটা বিয়ের পরেও অন্য যুবকের সঙ্গে আপত্তি করা অবস্থায় মা! মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করতেই খুন ছেলেকে

মৌসুমী

প্রকাশিত: নভেম্বর ২২, ২০২২, ০৬:৩৭ পিএম | আপডেট: নভেম্বর ২২, ২০২২, ০৬:৩৭ পিএম

আটটা বিয়ের পরেও অন্য যুবকের সঙ্গে আপত্তি করা অবস্থায় মা! মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করতেই খুন ছেলেকে
আটটা বিয়ের পরেও অন্য যুবকের সঙ্গে আপত্তি করা অবস্থায় মা! মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করতেই খুন ছেলেকে/প্রতীকী ছবি

সৎ মায়ের অবৈধ সম্পর্কের কথা জানতে পেরে গিয়েছিল ছেলে। এমনকি আপত্তিকর অবস্থায় এক অন্য পুরুষের সঙ্গে মাকে দেখেও নিয়েছিল সে। আর তার পরিণতি হল মৃত্যু। অন্য পুরুষের সাথে সম্পর্ক জানতে পারায় ছেলেকে খুন করল সৎমা। ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়ার কৃষ্ণগঞ্জ থানার অন্তর্গত পাগলা চণ্ডী এলাকায়।

জানা গিয়েছে, ২০ বছরের খোশ মোহাম্মদ তার সৎ মা ও অন্যান্য ভাই বোনদের সঙ্গে থাকতো পাগলা চণ্ডী এলাকায়। কিছুদিন আগেই সে তার সৎ মাকে অন্য এক পুরুষের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলে। এরপরেই সেতা ক্যামেরাবন্দি করে নেয়। যুবক এই সম্পর্কের কথা অন্যান্যদের জানিয়ে দেওয়ার কথাও বলে। এরপরই ওই মহিলা তার সৎ ছেলেকে খুন করার চক্রান্ত করে বলে অভিযোগ।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত পারবিনা বিবির সঙ্গে বছর কয়েক আগে মৃতের বাবা ভাঁটু শেখের বিয়ে হয়। এটি পারবিনা বিবির অষ্টম তম বিয়ে। এদিকে ভাঁটু শেখ দ্বিতীয়বার বিয়ে করেন পারবিনা বিবিকে। কাজের জন্য কলকাতায় থাকেন ভাঁটু শেখ। সেই সুযোগেই এলাকায় অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে পারবিনা বিবি।

পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার সকালে চাষ করতে মাঠে গিয়েছিলেন খোসমহম্মদ। বাড়ি ফিরলে তাঁকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেন। এরপর যুবককে গলা ফেপে শ্বাসরোধ করে খুন করেন। তা যাতে আত্মহত্যা মনে হয় তাই গলায় দড়ি দিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে দেহ ঝুলিয়ে দেওয়া হয়, বলে অভিযোগ পরিবারের।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, খোসমহম্মদের সঙ্গে পারভিনের সম্পর্ক কোনওদিনই ভাল ছিল না। প্রায়ই ছেলের উপর অত্যাচার করত ওই মহিলা। খেতে দিত না বলেও অভিযোগ। সোশ্যাল মিডিয়ায় এ বিষয়ে সরবও হয়েছিল খোসমহম্মদ। তবে পরিণতি যে এতটা ভয়ংকর হতে পারে, তা নিজেও হয়তো ভাবতে পারেননি তিনি।সোমবার রাতে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে পুলিশের দ্বারস্থ হয় পরিবার। মঙ্গলবার সকালে গ্রেপ্তার করা হয়েছে পারভিনকে।