রবিবার, ০৭ আগস্ট, ২০২২

দিদি নম্বর ১-এর শ্যুটিংয়ের ফাঁকে হঠাৎই পাশের সেটে হাজির রচনা! কিন্তু কেন?

চৈত্রী আদক

প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২২, ০৪:০৮ পিএম | আপডেট: আগস্ট ৩, ২০২২, ০৪:০৮ পিএম

দিদি নম্বর ১-এর শ্যুটিংয়ের ফাঁকে হঠাৎই পাশের সেটে হাজির রচনা! কিন্তু কেন?
দিদি নম্বর ১-এর শ্যুটিংয়ের ফাঁকে হঠাৎই পাশের সেটে হাজির রচনা! কিন্তু কেন?

বংনিউজ২৪×৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দিদি নম্বর ১, বর্তমানে বাংলা টেলিভিশনের সবথেকে জনপ্রিয় গেম শোগুলির মধ্যে একটি। এটি বাংলার দিদিদের আত্মপ্রকাশের একটি বড় মঞ্চ। সেই দিদি নম্বর ১-এর মূল আকর্ষণ হলেন শো-এর সঞ্চালিকা রচনা ব্যানার্জি। রাজারহাটের একটি স্টুডিওতে চলছিল দিদি নম্বর ১-এর শ্যুটিং। অন্যান্য দিনের মতোই একের পর এক এপিসোডের শ্যুটিং করছিলেন রচনা। কিন্তু শ্যুটিংয়ের ফাঁকে আচমকাই বিরতি নেন তিনি। সোজা চলে যান পাশের সেটে। কেন জানেন?

আসলে ওই স্টুডিওর পাশের সেটে চলছিল সারেগামাপা-র শ্যুটিং। কোনও পরিকল্পনা না করে আচমকাই সেখানে হাজির হন রচনা। তাঁকে দেখে রাতারাতি অবাক হয়ে যান আবির থেকে শুরু করে সারেগামাপা-র বিচারক এবং প্রতিযোগীরা। অভিনেত্রীর এই সারপ্রাইজ ভিজিটের নেপথ্যে কী কারণ ছিল? অভিনেত্রীর কথায়, কোনও বিশেষ কারণে সেখানে উপস্থিত হননি তিনি। তবে পাশের সেটে শ্যুটিং চলাকালীন তিনি বারবার শুনতে পাচ্ছিলেন আবিরের সঙ্গে সেলফি তুলতে অস্থির হয়ে পড়েছেন শো-এর প্রতিযোগী থেকে শুরু করে দর্শকরা। আর সেই শুনেই আবিরের সঙ্গে সেলফি তুলতে চলে আসেন রচনা।

মঞ্চে উপস্থিত হয়েই রচনা বলেন, “আমিও আবিরের সঙ্গে একটু সেলফি তুলতে এলাম।” ততক্ষণে একেবারে লজ্জায় লাল হয়ে গিয়েছেন আবির। তিনি বলে ওঠেন, “আরে আমিও দিদি নম্বর ১-এর সঙ্গে ছবি তুলতে চাই।” রচনার অবশ্য একটি অভিযোগও ছিল। তিনি বলেন, তাঁকে সারেগামাপার পক্ষ থেকে কখনও আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। তাই নিজে থেকেই তিনি মঞ্চে হাজির হয়েছেন।

এরপরই একে একে সকলের সঙ্গে সেলফি তুলতে শুরু করেন রচনা ব্যানার্জি। প্রথমেই ছবি তোলেন আবিরের সঙ্গে। এরপর একে একে মনোময়, জোজো, রাঘব সকলের সঙ্গেই সেলফি তোলেন তিনি। পন্ডিত অজয় চক্রবর্তী, শ্রীকান্ত আচার্য, রিচা শর্মা এবং শান্তনু মৈত্রকে নমস্কার জানান রচনা।

অভিনয়ের পাশাপাশি রচনা ব্যানার্জি যে ভালো গান গাইতে পারেন একথা কমবেশি সকলেরই জানা। তাই সুরের মঞ্চে উপস্থিত হয়ে গান না গাইলে চলে কখনও? অতএব সকলের মিলিত অনুরোধে রচনা গেয়ে ওঠেন ‘তোমাতে আমাতে দেখা হয়েছিল’। তাঁর গানে মুগ্ধ হয়ে যায় গোটা সারেগামাপা-র মঞ্চ। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে এসেছে এই ভিডিও। রচনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন নেটিজেনরা। একজন লিখেছেন, ‘দিদি তুমি সত্যিই মাল্টি ট্যালেন্টেড’।