শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২

বাবার মুদির দোকান! বহু বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে আজ দেশের এই রাজ্যের দ্বিতীয় মহিলা পাইলট আফরিন

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: অক্টোবর ৩১, ২০২২, ০১:৫৫ পিএম | আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২২, ০২:৩২ পিএম

বাবার মুদির দোকান! বহু বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে আজ দেশের এই রাজ্যের দ্বিতীয় মহিলা পাইলট আফরিন
বাবার মুদির দোকান! বহু বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে আজ দেশের এই রাজ্যের দ্বিতীয় মহিলা পাইলট আফরিন

প্রবল ইচ্ছাশক্তি আর মনে অদম্য জেদ থাকলে কোনও কিছুর জন্যই যে অসম্ভব নয়, তা ফের একবার প্রমাণ হল। বাবার ছোট্ট মুদির দোকান৷ জীবনে চলার পথে ছিল হাজারও বাধা-বিপত্তি। সেই মেয়েই আজ ছুঁয়ে ফেলেছেন ছেলেবেলার স্বপ্ন। স্রেফ লড়াই করার মানসিকতা, পরিশ্রম ও অদম্য জেদকে আঁকড়ে স্বপ্নপূরণ করেছেন তেলেঙ্গানার আদিলাবাদের আফরিন হিরানি।

স্বপ্নপূরণ একেবারেই পথ সহজ ছিল আদিলাবাদের ইন্দরভেল্লি মণ্ডল সেন্টারে বাবা আজিজ হিরানি ছোট মুদির দোকান। কিন্তু আফরিন ছোট থেকেই স্বপ্ন দেখতেন আকাশে ওড়ার। বিমান ওড়ানোর স্বপ্ন তাঁর সেই ছোট্ট থেকেই। তাই বাবার দোকানে মাঝেমধ্যে বসার ফাঁকেও নিজেও স্বপ্নকে হারাতে দেননি। বরং জীবনের একের পর এক চ্যালেঞ্জ জিতে নিয়েছেন ২৮ বছরের এই তরুণী।

আফরিন আজ দেশের সব থেকে বড় বিমান সংস্থার পাইলট। পাশাপাশি তেলেঙ্গানার আদিলাবাদের দ্বিতীয় মহিলা বিমান চালক তিনি। আফরিনের আগে আদিলাবাদ থেকে বিমান চালনার পেশায় সফল হয়েছিলেন আরেক মহিলা, স্বাতী রাও। স্বাতীকে দেখেই উদ্বুদ্ধ হয়েছিলেন আফরিন। ২০২০ সালের মধ্যেই সমস্ত প্রশিক্ষণ শেষ করেন এই তরুণী। কিন্তু বাধ সাধে অতিমারি। কিন্তু আফরিন আশা হারাননি। প্রায় দু’বছর ধরে অপেক্ষার পর অবশেষে ইন্ডিগো সংস্থার ককপিটে সেকেন্ড-ইন-কমান্ড নিযুক্ত হন তিনি।

সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যমে আফরিন জানান, ‘‘চেয়েছিলাম শীর্ষে পৌঁছাতে, অন্য মেয়েদের জন্য উদাহরণ তৈরি করতে। আদিলাবাদের স্কুলে পড়াশোনা করেছিলাম। তারপর হায়দ্রাবাদে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে এরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে বেসরকারি কলেজে ভর্তি হই। অস্ট্রেলিয়ার দু’বছর পাইলট হওয়ার প্রশিক্ষণ নিয়েছিলাম। তার পরেই বুঝতে পারি আমার স্বপ্ন সফল।’’

এবার আফরিনের আশা, ঠিক যেমন আদিলাবাদের দ্বিতীয় মহিলা বিমান চালক  স্বাতী রাওকে দেখে যেমন তিনি উদ্ধুদ্ধ হয়েছিলেন, তেমনই তাঁকেও দেখেও আদিলাবাদের আরও অনেক মেয়েই বিমান চালনাকেই পেশা হিসাবে বেছে নেবেন। সকলের কাছেই অনুপ্রেরণা হয়ে উঠতে চান আফরিন।