শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

পায়ে পায়ে ২৫! প্রতিষ্ঠা দিবসে বহুমুখী প্রকল্পের ঘোষণা করতে পারে তৃণমূল

মৌসুমী

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৩১, ২০২২, ০১:৩০ পিএম | আপডেট: ডিসেম্বর ৩১, ২০২২, ০১:৩০ পিএম

পায়ে পায়ে ২৫! প্রতিষ্ঠা দিবসে বহুমুখী প্রকল্পের ঘোষণা করতে পারে তৃণমূল
পায়ে পায়ে ২৫! প্রতিষ্ঠা দিবসে বহুমুখী প্রকল্পের ঘোষণা করতে পারে তৃণমূল

পায়ে পায়ে এবার  ২৫ বছর পূর্ণ করতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। পয়লা জানুয়ারি দলের প্রতিষ্ঠা দিবস। তবে তার পরের দিন ২ জানুয়ারি নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠান রয়েছে দলের। সেখানে একগুচ্ছ বহুমুখী কর্মসূচির ঘোষণা করতে পারে দল। ওইদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে সমস্ত সাংসদ বিধায়ক মন্ত্রিসহ অন্যান্য নেতারাও।

সামনে পঞ্চায়েত নির্বাচন এদিকে লোকসভা নির্বাচনে রয়েছে। তাই জানা গিয়েছে সামনে অনেক বড় চ্যালেঞ্জ রয়েছে দলের কাছে। তাই আপাতত সেদিকেই পাখির যোগ করে দলের প্রতিষ্ঠা দিবসে বার্তা দিতে চায় রাজ্যের শাসক দল। সেদিনের অনুষ্ঠানে সামাজিক প্রকল্পগুলির বহুমুখী দিকগুলি কেউ তুলে ধরা হবে বলে সূত্রের খবর। ওইদিনের অনুষ্ঠানে শীর্ষ নেতৃত্বের পাশাপাশি রাজ্য জেলা ও ব্লক কমিটির আধিকারিক, দলের মহিলা ও যুব-ফ্রন্টের সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন।

দলের রাজ্যসভার সাংসদ তথা জাতীয় তৃণমূল মুখপাত্র সুখেন্দুশেখর রায় জানান, "২৫ বছরের ধারাবাহিকতা অনেক অনেক আছে। ২০০৯ থেকে ২০২২ লাগাতার সব ভোটে আমরা জিতেছি। বিপুল জয় হয়েছে। ২০২১ সালে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতাচ্যুত হচ্ছে এমন প্রচার চলেছিল। যদিও মানুষ আমাদের আশীর্বাদ দিলেন। এমন নজির কোথাও কিন্তু নেই। তৃণমূল কংগ্রেস নিজস্ব দল বাংলার। বাম-কংগ্রেস শূন্য পেয়েছে। বাংলার মানুষ বর্জন করেছে তাদের।"

তিনি আরো বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকলকে সংগঠিত করেছেন। প্রাণঘাতী হামলা হয়েছে তাঁর উপর। এর পর নানা গণ আন্দোলন তাঁর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। সিঙ্গুর-নন্দীগ্রাম-নেতাই যার উদাহরণ। কৃষকদের অধিকার রক্ষা, শান্তি ফেরানো অনেক ঘটনা আছে।" প্রসঙ্গত, ১৯৯৮ সালের জানুয়ারিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেস থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে নিজের আলাদা দল গঠন করেছিলেন। ২০২১ সালের বাংলার নির্বাচনের আগে তৃণমূল কংগ্রেস ‍‍`দিদিকে বলো‍‍`, ‍‍`বাংলার গর্ব মমতা‍‍` এবং ‍‍`বাংলা নিজের মেয়েকে চায়‍‍`-এর মতো প্রচার ইভেন্ট চালু করেছিল।